এই মুহূর্তে কলকাতা

মনিপুরের সাম্প্রতিক পরিস্থিতির জন্য দায়ী বিভাজনের রাজনীতিই, মন্তব্য মুখ্যমন্ত্রীর।


কলকাতা, ৮ মে:- বিভাজনের রাজনীতিই মণিপুরের সাম্প্রতিক অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতির জন্য দায়ী বলে তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি মন্তব্য করেছেন। সেখানকার পরিস্থিত নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে মুখ্যমন্ত্রী এই অবস্থার জন্য বিজেপিকেই দায়ী করেছেন। নবান্নে আজ সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, মণিপুরের সমস্যা ম্যানমেড। বিজেপি সেখানে জাতপাতের রাজনীতির আগুন নিয়ে খেলেছিল। তা থেকেই পরিস্থিতির সূত্রপাত। এরাজ্যেও একই ভাবে আগুন লাগানোর চেষ্টা করা হলেও তা রুখে দেওয়া হয়েছে। এদিকে হিংসা দীর্ণ মণিপুরে মৃতের প্রকৃত সংখ্যা প্রকাশ করা হচ্ছেনা বলেও তিনি সংশয় প্রকাশ করেছেন। মণিপুরের বর্তমান পরিস্থিতি প্রসঙ্গ তুলে তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী রবীন্দ্র জয়ন্তীতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের রাজ্য সফর নিয়েও কটাক্ষ করেন।

মণিপুরে আটকে থাকা এরাজ্যের বাসিন্দাদের নীরাপদে ফিরিয়ে আনতে রাজ্য সরকার তত্পর বলে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন। নবান্নে ২৪ ঘণ্টার কন্ট্রোল রুম চালু করা হয়েছে। কন্ট্রোল রুমের দু’টি যোগাযোগ নম্বর হল— ০৩৩ ২২১৪ ৩৫২৬, ০৩৩ ২২৫৩ ৫১৮৫। তিনি জানান এপর্যন্ত সেখানে আটকে থাকা ১৮৫ জন বাঙালির সঙ্গে যোগাযোগ সম্ভব হয়েছে। তার মধ্যে ১৮ জন পড়ুয়া সহ ২৫ জনকে সরকারি খরচে নীরাপদে ফিরিয়ে আনা হয়েছে। মণিপুরের সরকারের সঙ্গে সমন্বয় রেখে বাকিদেরও ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। রাজস্থান, অন্ধ্রপ্রদেশ-সহ যেসব রাজ্যের ছেলেমেয়েরা বাংলা হয়ে নিজেদের রাজ্যে ফিরছেন তাঁদেরও রাজ্য সরকার যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গন ও অন্যান্য যুব হস্টেলে অস্থায়ী আশ্রয়ের ব্যবস্থা করেছে। মুখ্যমন্ত্রী জানান, দুর্গম পথ বা দূরত্বের কারণে অনেকে বিমানবন্দর বা রাজধানী ইম্ফল পর্যন্ত আসতে পারছেন না। তাই মণিপুর সরকারকে অনুরোধ করা হয়েছে যাঁরা দূরবর্তী জায়গায় আছেন তাঁদের নিরাপদে বিমানবন্দর পর্যন্ত পৌঁছে দিতে।