এই মুহূর্তে জেলা

আবাস যোজনার টাকা পেতে হলে ডবল ইঞ্জিন সরকার চাই, হাওড়ায় শুভেন্দু।


হাওড়া, ৫ জানুয়ারি:- হাওড়া সদর বিজেপির ডোমজুড় ব্লকের উত্তর ঝাঁপড়দহ এলাকাতে অঞ্চল সম্মেলনে আসেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। বৃহস্পতিবার দলীয় অনুষ্ঠানে রাজ্য সরকারকে আবাস যোজনার দুর্নীতি ইস্যুতে তোপ দাগেন শুভেন্দু। তিনি অভিযোগ করে বলেন চার চাকার গাড়ি রয়েছে তিনিও আবাস যোজনায় কেন্দ্রের অর্থ পেয়েছেন। এছাড়াও বিপুল পরিমানে দুর্নীতির অভিযোগে রাজ্যে এসেছে কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক দল। তাঁদেরকেও এলাকাতে ঢুকতে বাধা দিচ্ছে তৃণমূল। তবে প্রয়োজনে কেন্দ্রীয় বাহিনী নিয়ে তাঁরা এলাকাতে ঢুকবেন বলেও তৃণমূলকে হুঁশিয়ারি দেন তিনি। পাশাপাশি ২৮ টাকার সস্তার মদ বিক্রি নিয়েও একহাত নেন তিনি। শুভেন্দু কটাক্ষ করে বলেন ২৮ টাকার মদ খেয়ে দুহাত তুলে জয় বাংলা বলে চিৎকার করবে এটাই চায় রাজ্যের সরকার।

তাই পাঁচশো টাকা মায়েদের দিয়ে তাঁদের শিক্ষিত সন্তানদের ভবিষ্যৎ অন্ধকার করে দিয়েছে এই রাজ্য সরকার। তিনি আরও অভিযোগ করে বলেন লোকেরা লটারি কেটেই যাচ্ছে আর পুরস্কার পাচ্ছে সপরিবারে কেষ্ট ও তাঁর কন্যা। পাশাপাশি মোমিনপুরের উদাহরণ তুলে তিনি বলেন তৃণমূল রাজ্যটাকে দ্বিতীয় বাংলাদেশ তৈরী করতে চাইছে। তাই রাজ্য জুড়ে সিএএ কে সামনে রেখে মুখ্যমন্ত্রী আগুন জ্বালিয়েছিলেন। মোমিনপুরের মতো স্থানে আগে হিন্দুরা পঞ্চাশ শতাংশ ছিলেন আর আজকে ২০ শতাংশ। তাই তিনি সাবধান করে বলেন রাজ্যটাকে বাংলাদেশ তৈরী করে ফেলতে চাইছেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি একদিন বিধানসভা ভাঙচুর করেছিলেন, ডিনামাইট দিয়ে তৈরী হয়ে যাওয়া কারখানা গুঁড়িয়ে দিয়েছিলেন। অতীতে সিপিএম এক কোটি বেকার তৈরী করেছিল আর এই সরকার তাই বাড়িয়ে দুই কোটি করেছে বলেই দাবি করেন শুভেন্দু।