এই মুহূর্তে জেলা

রূপনারায়ন নদীতে উদ্ধার মা কালীর কাঠের মূর্তি।


পূর্ব-মেদিনীপুর , ২২ আগস্ট:- গত দুদিন আগে অর্থাৎ বৃহস্পতিবার দুপুর নাগাদ কোলাঘাট বাবুয়া গ্রামে রূপনারায়ন নদে ভেসে আসে একটি নটরাজ আকৃতির সুদৃশ্য মা কালীর কাঠের মূর্তি। স্থানীয় দেনান গ্রামের মহেশ্বর জানা নদী থেকে উদ্ধার করেন। সুদৃশ্য কাঠের প্রতিমাটি বিভিন্ন সোস্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়ায় প্রতিমা দেখবার জন্য প্রতিদিন ভিড় জমাচ্ছেন মানুষ। মহেশ্বর বাবু জানান, প্রতিমাটি পাওয়ার সময় একটি হাত ভেঙে যাওয়ার কারনে চিন্তায় ছিলেন কিভাবে মূর্তিটিকে ভালোভাবে জোড়া লাগানো যায়। তবে কিছু পরেই নদীতে উদ্ধার হয় ভাঙা হাতের অংশ। ফলে বর্তমানে প্রতিমাটির হাত জোড়া লাগিয়ে নদীর ধারেই শনি দেবতার মন্দিরেই অস্থায়ী ভাবে স্থান পেয়েছে ভেসে আসা দেবীর।

তবে লক্ষ্য রয়েছে সবার সাহায্য নিয়ে দেবীর একটি মন্দির স্থাপন করা ও মুর্তিটি পুনঃসংস্কার করে সাধারন মানুষজনদের জন্য দর্শনীয় একটি মন্দির হিসেবে গড়ে তোলা। যদিও এই মহেশ্বর জানা এলাকায় খুবই জনপ্রিয় মানুষ। বেশকিছু বছর আগে কোলাঘাটে নৌকাডুবির ঘটনায় বেশকয়েকজন মানুষকে প্রানে বাঁচিয়েছিলেন এবং বেশ কিছু জায়গায় পুরস্কারে সন্মানিতও হয়েছিলেন। এরপর আবার নদীবক্ষে কালীঠাকুরের প্রতিমা গুড়িয়েও বেশ প্রশংসায় পঞ্চমুখ হচ্ছেন মহেশ্বর বাবু। তবে গত দুদিন ধরে দেবী পূজিতাও হচ্ছেন তার পাশাপাশি বহুদূর থেকেও দেখতে আসছেন উৎসাহী মানুষেরা।