এই মুহূর্তে জেলা

পুলিশের প্রতি মানুষের আস্থা ও সম্মান বাড়াতে ১ সেপ্টেম্বর পুলিশ দিবস ঘোষণা মুখমন্ত্রীর।


নবান্ন , ১৭ আগস্ট:- পুলিশের প্রতি সাধারণ মানুষের আস্থা ও সম্মান বাড়াতে কলকাতা সহ রাজ্যের সব জেলায় যথাযোগ্য মর্যাদার সঙ্গে আগামী পয়লা সেপ্টেম্বর দিনটি পালন করা হবে। করোনা মহামারীর বিরুদ্ধে সামনের সারিতে থেকে লড়াই করে চলা ও প্রাণ উৎসর্গ করা পুলিশ কর্মীদের সম্মান জানাতে রাজ্য সরকার এবছর থেকে পয়লা সেপ্টেম্বর দিনটিকে পুলিশ দিবস হিসেবে পালন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে । মুখ্যমন্ত্রী তথা পুলিশ মন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি আজ নবান্নে সাংবাদিকদের বলেন সাধারণ মানুষের সঙ্গে পুলিশের সম্পর্ককে আরও সুদৃঢ় করতে , উল্লেখ্য করনায় সংক্রমিত হয়ে রাজ্যে এখনও পর্যন্ত ১৮ জন পুলিশ কর্মীর মৃত্যু হয়েছে । কর্মীদের মধ্যে সংক্রমণ ঠেকাতে সামাজিক দূরত্ব বিধি মেনে পুলিশকর্মীদের কাজ করার সুযোগ করে দিতে আরো ২০ টি নতুন ব্যারাক তৈরি করা হবে বলেও তিনি ঘোষণা করেন। পুলিশ কর্মীদের উন্নয়নে ২০১২ সালে যে পুলিশ উন্নয়ন পর্ষদ গঠন করা হয়েছিল পরিকাঠামো ঢেলে সাজিয়ে পুনর্গঠন করা হবে বলে তিনি জানান। এই পর্ষদ পুলিশ দিবস থেকেই কাজ শুরু করবে।

সেজন্য পুলিশ সুপারের নেতৃত্বে প্রতিটি জেলায় একটি করে কমিটি তৈরি করা হবে। এছাড়াও রাজ্য পুলিশের ইন্সপেক্টর পদমর্যাদা পর্যন্ত যে সব পুরুষ ও মহিলা আধিকারিক কর্মরত রয়েছেন তাদের এক ও অভিন্ন গ্রেড এর আওতায় আনার কথাও মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেন । এর ফলে পদোন্নতির ক্ষেত্রে মহিলারা এখন থেকে পুরুষদের মত সমান সুযোগ পাবেন। প্রসঙ্গত রাজ্য পুলিশের ইন্সপেক্টর পদমর্যাদা পর্যন্ত কর্মরত মহিলা আধিকারিকদের পদের সংখ্যা অত্যন্ত কম হওয়ায় এতদিন তারা সময় মত পদোন্নতির সুযোগ থেকে বঞ্চিত হচ্ছিলেন । মুখ্যমন্ত্রী এই দিন করনায় সংক্রমিত হয়ে যেসব পুলিশ কর্মী ছাড়াও সিভিক ভলেন্টিয়ার , সাফাই কর্মী , স্বাস্থ্য কর্মী ও সাংবাদিকরা মারা গিয়েছেন তাদের পরিবারের একজনকে চাকরি দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন।