এই মুহূর্তে জেলা

বৈদ্যবাটিতে হুরমুড়িয়ে ভেঙে পড়লো পুরানো বাড়ি।


হুগলি, ১৯ মার্চ:- বৈদ্যবাটিতে হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ল একটি পুরোনো বাড়ি। আহত বাড়ি ভাঙার কাজে নিযু্ক্ত দুই শ্রমিক। গার্ডেনরিচে বহুতল ভেঙে পড়ার আতঙ্কের মধ্যেই বৈদ্যবাটির ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়ালো। বৈদ্যবাটি চৌমাথায় জিটি রোডের ওপর একটি পুরোনো বাড়ি ভাঙার কাজ চলছিল কয়েকদিন ধরে। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে আজ দুপুরে সেই বাড়ি ভাঙার কাজ চলছিল। হঠাৎই জিটি রোডের ওপর হুরমুড়িয়ে ভেঙে পড়ে বাড়িটির একাংশ। কর্মরত ২ জন শ্রমিক আহত হন। তাদের প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়। ঘটনায় রীতিমতো চাঞ্চল্য ছাড়া এলাকায়।

স্থানীয়রা জানান, একটুর জন্য বড়সর দুর্ঘটনা ঘটতে পারত।খবর পেয়ে ঘটনাস্টলে আসে শ্রীরামপুর থানার পুলিশ। ঠিকাদার সহ তিনজন জনকে আটক করে শেওরাফুলী ফাঁড়ির পুলিশ। কোনরকম নিরাপত্তার ব্যবস্থা ছিলনা, বাড়ি ভাঙা হয়ে রাস্তার দিকে নেট বা চট দিয়ে ঢেকে দেওয়া হয় যাতে পথচারীদের দূর্ঘটনা না ঘটে। বাড়িটি অনুমতি নিয়ে ভাঙ্গা হচ্ছিল কিনা তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। বৈদ্যবাটি পুরসভার চেয়ারম্যান পিন্টু মাহাতো বলেন, বাড়ি ভাঙার অনুমতি ছিল কিনা সেটা দেখতে হবে। অনুমতি দেওয়া থাকলেও সমস্ত কিছু নিরাপত্তা ব্যবস্থা করে তবেই ভাঙ্গার কথা। যদি তা না হয়ে থাকে ঠিকাদারের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হব।