এই মুহূর্তে জেলা

“লকেট দিদির দেখা নাই, তাই এবার ভোট নাই”, এমনই পোস্টার পড়লো হুগলিতে।


হুগলি, ৬ মার্চ:- লকেট দিদির দেখা নাই তাই এবার ভোট নাই, এমনই পোস্টার পড়ল পান্ডুয়ার খন্যান কলেজ সংলগ্ন এলাকায়। লকেট চট্টোপাধ্যায় গত পাঁচ বছর হুগলির সাংসদ।এবারও লোকসভা ভোটে তাকে টিকিট দিয়েছে বিজেপি। লকেট চট্টোপাধ্যায় প্রচার শুরু করে দিয়েছন জোর কদমে। ২০১৯ সালে লকেট চট্টোপাধ্যায় পরাজিত করেছিলেন তৃনমূলের রত্না দে নাগকে। রত্না এখন পান্ডুয়ার বিধায়ক। লকেট ২০২১ সালে চুঁচুড়া বিধানসভায় প্রার্থী হয়ে তৃনমূলের অসিত মজুমদারের কাছে পরাজিত হয়েছিলেন। আবার লোকসভায় লড়াই করছেন। চুঁচুড়ায় তার দলের নিচুতলার কর্মিদের একাংশের ক্ষোভ দেখা যাচ্ছে। এবার খন্যানে লকেট কে ভোট না দেওয়ার পোস্টার পড়ল। বিজেপি হুগলি জেলা সংখ্যা লঘু মোর্চার সভানেত্রী রুখসানা বিবি বলেন, যতই পোস্টার লাগাক যেদিন লকেট দি যেদিক থেকে প্রার্থী হয়েছেন বিরোধীদের ঘুম ছুটে গেছে।

ওসব পোস্টার লাগিয়ে কিছু লাভ হবে না।লকেট চট্টোপাধ্যায় জিতবেন। স্থানীয় বাসিন্দারা জানান,লকেট চট্টোপাধ্যায়ের দেখা পাওয়া যায়না এটা সঠিক। কে বা কারা পোস্টার মেরেছে জানা নেই তবে লকেট নির্বাচন এলেই পরিযায়ী পাখির মত আসেন। হুগলি শ্রীরামপুর সাংগঠনিক তৃণমূল জেলা সম্পাদক অসিত চট্টোপাধ্যায় বলেন যারা এই পোস্টার লাগিয়েছেন তাদের সাথে আমি সহমত। লকেট চট্টোপাধ্যায়ের দেখা পাওয়া যায়নি। কিন্তু তৃণমূল এইসব নাম গোত্রহীন পোস্টারের বিরোধী। যাদের সৎ সাহস থাকবে তারা সরাসরি প্রতিবাদ করবে।এটা সম্পূর্ণভাবে বিজেপির গোষ্ঠীকোন্দলের ফল। তৃণমূল এই কার্যকলাপের সঙ্গে যুক্ত নয়।