এই মুহূর্তে জেলা

হুগলির আম পাড়ি দিচ্ছে বিদেশেও, খুশি আম চাষিরা।


প্রদীপ বসু, ২২ মে:- এবার হুগলি জেলার আম পাড়ি দিচ্ছে বাইরের রাজ্যের সাথে বিদেশেও খুশির হাওয়া চাষী মহলে। ভিন রাজ্য থেকে বিদেশ পাড়ি দিচ্ছে হুগলির আম। আর এতেই খুশির হওয়া চাষী থেকে ব্যাবসায়ী মহলে। আম ব্যাবসায়ীরা জানাচ্ছে এবার আম পাড়ি দিচ্ছে রাজস্থান, ছত্রিশগড়, বিহার, ঝারখন্ড সহ বিভিন্ন রাজ্য ও বিদেশে।মালদার পর সব থেকে বেশি আমের চাষ হয় এই রাজ্যের হুগলি জেলায়। ব্যান্ডেল, সুগন্ধা, চুঁচুড়া সহ সিঙ্গুরের মাটিতে। অন্যান্য বছরের তুলনায় এবছর আমের ফলন ভালো হয়েছে হুগলি জেলায়। প্রত্যেক বছর আমের বাগানের মালিকদের থেকে লিজ নিয়ে আম চাষ করে চাষীরা। ল্যাংড়া, হিমসাগর, কাচা মিঠা, মুম্বাই সহ বিভিন্ন প্রজাতির আম চাষ হয় আর এই আমগুলি খেতেও সুস্বাদু। আর সেই কারণেই হুগলি জেলার আম পাড়ি দেয় ভিন রাজ্য থেকে বিদেশে। আর লাভের মুখ দেখতে পায় আম চাষীরা।

তবে এবার কালবৈশাখীর কারণে কিছুটা হলেও চিন্তায় ফেলেছে আম চাষীদের। এই সময় আম পাকার সময়। আর ঝড় বৃষ্টির কারণে নষ্ট হয়েছে অনেক আম। তাই বেলা থাকতেই আম পেড়ে নিচ্ছে চাষীরা। গাছ পাকা আম হলে দাম একটু বেশি পাওয়া যায়। কিন্তু মাঝে মধ্যেই যেভাবে কালবৈশাখী হচ্ছে তাতে সাহস পাচ্ছেনা চাষীরা। আগে থেকেই পেড়ে ফেলছে আম। আম চাষীরা বলেন প্রকৃতির সাথে তো আর পারে ওঠা যায়না। ঝড় হলে কিছুই করার থাকে না। তাই ঝড়ের জন্য আম পড়ে গিয়ে নষ্ট হওয়ার থেকে আগে পেড়ে নেয়াই ভালো। গত বছর আমের দাম অনেকটা বেশি ছিল কারণ আমের ফলন কম হয়েছিল। আর এই বছর আমের ফলন বেশি হওয়ায় আমের দাম তুলনামূলক ভাবে কম। কিন্তু শ্রমিক ও ওষুধের দাম অনেক বেশি। আর গাড়ি ভাড়াও ২০০০০ থেকে ২৫০০০ বেড়েছে। হুগলি জেলায় ব্যান্ডেল, চন্দননগর, বলাগর সিঙ্গুর বাজার সহ অন্যান্য বাজারে ভালো আম পাওয়া যায়। আর হুগলি জেলার বিভিন্ন প্রজাতির আম ভিন রাজ্য সহ বিদেশে পাড়ি দেয়। এই বছর আমের ভালো ফলনের সাথে ভালো দাম পাওয়ায় খুশির হাওয়া আম চাষীদের মনে। আর এবার বেশি আম বাইরে যাওয়ায় আরো বেশি খুশি হুগলির আম চাষীরা।