এই মুহূর্তে কলকাতা

কোনভাবেই বাড়বে না বাস ভাড়া, স্পষ্টতই জানালো রাজ্য।


কলকাতা ২৮ এপ্রিল:- কোনও ভাবেই বাস ভাড়া বাড়ানো হবে না বলে ফের স্পষ্ট ভাবে জানিয়ে দিল রাজ্য। সরকারের স্পষ্ট নির্দেশ ২০১৮ সালের ভাড়া নিয়েই বাস চালাতে হবে বেসরকারি বাস মালিকদের। পাশাপাশি বাসে ভাড়ার তালিকা টাঙানো বাধ্যতামূলক। অন্যথায় কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন পরিবহণ মন্ত্রী স্নেহাশিস চক্রবর্তী। পাল্টা হুঁশিয়ারি দিয়েছেন বেসরকারি বাস মালিকরাও। তাদের দাবি সাধারণ বাসে ৫০.৭৪ শতাংশ এবং মিনিবাসে ৪৪ শতাংশ ভাড়া না বাড়ালে রাস্তা থেকে তিন সপ্তাহ পরে তুলে নেওয়া হবে সমস্ত বাস। শুক্রবার বেসরকারি সবকটি গণ পরিবহণ সংগঠনের জয়েন্ট ফোরামের সঙ্গে রাজ্যের পরিবহন মন্ত্রীর স্নেহাশীষ চক্রবর্তীর দীর্ঘক্ষণ বৈঠক হয়।

মূলত বাস ভাড়া বৃদ্ধি এবং পুলিসি জুলুম নিয়ে তাদের এই বৈঠক হয়। যদিও রাজ্য পরিবহন দফতরের তরফ থেকে স্পষ্ট করে দেওয়া হয়েছে, ২০১৮ সালের ভাড়া আপাতত চালিয়ে যাওয়ার যে নির্দেশিকা আদালত দিয়েছে, সেই নির্দেশিকা মেনেই সাধারণ বাসে ন্যূনতম সাত টাকা এবং মিনিবাসে ন্যুনতম আট টাকা হারেই ভাড়া নিয়ে বাস চালাতে হবে।বাস মালিকদের পাল্টা হুঁশিয়ারি, তিন সপ্তাহের মধ্যে তাদের দাবি মতো ভাড়া না বাড়লে শহরের রাস্তা বাস মিনিবাস শূণ্য হয়ে যাবে। অ্যাপ ক্যাব পরিষেবার অবস্থাও তথৈবচ। ৩০ হাজার থেকে কমে গাড়ির সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১২ হাজারে। এসি চালানো নিয়ে চালক এবং সওয়ারির বচসা নিত্যনৈমিত্তিক ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে।

এবার এর মোকাবিলায় হলুদ ট্যাক্সিকে অ্যাপ ক্যাব করে তোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য। পুজোর আগেই হলুদ ট্যাক্সি, ওলা উবার সহ বিভিন্ন অ্যাপ ক্যাব চালিয়ে লভ্যাংশ ও মুনাফা থেকে বঞ্চিত গাড়ি এবং রাজ্যের গতিধারা প্রকল্পে লোন নিয়ে গাড়ি কিনেও যে সব মালিক বা চালক, তাদের হাতে বঞ্চনার শিকার, এদের সবাইকে এক ছাতার তলায় এনে রাজ্য পরিবহন দফতর নিজস্ব অ্যাপ ক্যাব পরিষেবা চালু করতে চলেছে।যদিও এই বিষয়ে টেকনিকাল গাইড লাইন এখনও স্পষ্ট নয়। তাই আগামি সপ্তাহে পরিবহণ দফতরে টেকনিকাল টিমের সঙ্গে ফের বৈঠকে বসার ডাক দেওয়া হয়েছে অ্যাপ ক্যাব অপারেটর্স গিল্ডকে।