এই মুহূর্তে কলকাতা

১৫ বছরের বেশি বয়সী গাড়ি বাতিলের প্রক্রিয়া শুরু, ১লা এপ্রিল থেকে।


কলকাতা, ৩১ জানুয়ারি:- আগামী ১ লা এপ্রিল থেকে রাজ্যে ১৫ বছরের বেশি বয়সী গাড়ি বাতিলের প্রক্রিয়া শুরু হচ্ছে। প্রথম পর্যায়ে মেয়াদ উত্তীর্ণ সরকারি গাড়ি বাতিল করা হবে। এই মর্মে রাজ্যের সমস্ত আরটিওকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে পরিবহন মন্ত্রী স্নেহাশিস চক্রবর্তী জানিয়েছেন। হাওড়ার সাঁতরাগাছি বাস টার্মিনাসে আজ এক অনুষ্ঠানে তিনি বলেন জাতীয় পরিবেশ আদালতের নির্দেশ এবং কেন্দ্রের নতুন পরিবহন নীতি অনুসারে ১৫ বছরের উপরের সব গাড়িকেই ধাপে ধাপে বাতিল করা হবে। বাতিল হওয়া গাড়িগুলোকে ভাঙার জন্য প্রতিটি জেলাতে স্ক্র্যাপ ইউনিট তৈরি করা হবে। রাজ্যে বর্তমানে এধরণের স্ক্র্যাপ ইউনিটের সংখ্য়া যথেষ্ট নয়। তাই নতুন কারখানা তৈরিতে উত্সাহ দিতে রাজ্য সরকার একটি নতুন নীতি তৈরি করেছে।

পরিবহন মন্ত্রী জানিয়েছেন পুরনো বাণিজ্যিক গাড়ি জমা দিলে গাড়ির মালিক বৈধ কাগজ পাবেন। সেক্ষেত্রে তাঁর জন্য নির্দিষ্ট রুট পারমিট দিয়ে সে পুনরায় নতুন গাড়ি কিনতে পারবেন। পাশাপাশি পছন্দের নম্বর নেওয়ার ক্ষেত্রে গাড়ি কেনার আগে থেকে আবেদন করা যাবে। নতুন গাড়ি কেনার জন্য তাদের কর ছাড়ের মতো কিছু বিশেষ সুবিধা দেওয়ার কথা ভাবা হচ্ছে বলে পরিবহন মন্ত্রী জানিয়েছেন। একই বিশেষ নম্বরের জন্য সব আবেদনকারীকে ডেকে তাঁদের মধ্যে থেকে সর্বোচ্চ যিনি দাম দেবেন, ওই নম্বর তাকেই দেওয়া হবে। এছাড়াও সাধারণ নম্বরের ক্ষেত্রে আবেদনকারীরা উপলব্ধ নম্বর থেকে বেছে নিতে পারবেন বলেই জানান পরিবহন মন্ত্রী স্নেহাশিস চক্রবর্তী। এ ছাড়াও আগামীদিনেই পরিবহণের উপরে সরকার জোর দিয়েছে বলেও জানান তিনি। যদিও রাজ্যের সর্বত্র গজিয়ে ওঠা টোটো তৈরীর কোম্পানিগুলোর ক্ষেত্রে মন্ত্রী জানান যাদের কাছে বৈধ সরকারি অনুমতি আছে তাঁরাই টোটো তৈরী করতে পারবে। তবে টোটো গাড়ির রেজিস্ট্রেশন ও লাইসেন্স দেওয়ার ক্ষেত্রে কোনো পরিকল্পনা এই মুহূর্তে নেই সরকারের।