এই মুহূর্তে কলকাতা

সাধারণতন্ত্র দিবসে দিল্লির রাজপথ বাংলার মা দুর্গা।


কলকাতা, ২৪ জানুয়ারি:- এবারে সাধারণতন্ত্র দিবসে দিল্লির রাজপথ আলো করবেন বাংলার মা দুর্গা। এবার সাধারণতন্ত্র দিবসের কুচকাওয়াজের বিশেষ আকর্ষণ হতে চলেছে বাংলার ট্যাবলো। যার থিম বাংলার দুর্গাপুজো। তবে এরাজ্য়ের মানুষও বঞ্চিত হবেন না। কলকাতার রেড রোডে প্রজাতন্ত্র দিবসের কুচকাওয়াজে দুর্গাপুজোর থিম নিয়ে একটি জমকালো ট্যাবলো অংশ নেবে। মঙ্গলবার রেড রোডে প্রজাতন্ত্র দিবসের বর্ণাঢ্য কুচকাওয়াজের দেড় ঘন্টার চূড়ান্ত মহড়া অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে দেখা গেছে এই ট্যাবলোটি। এদিন সাত সকালে শহর কোলকাতার রেড রোডে আগামী ২৬ শে জানুয়ারি প্রজাতন্ত্র দিবসের কুচকাওয়াজের চূড়ান্ত মহড়া অনুষ্ঠিত হয়।কলকাতা পুলিশ, রাজ্য পুলিশ, ইস্টার্ন কমান্ডের জোয়ান দের পাশাপাশি যোগ দেওয়া স্কুল গুলির ছাত্র – ছাত্রি রাও এদিন এই মহড়ায় উপস্থিত ছিলেন। মহড়ার দায়িত্বে থাকা জয়েন্ট সিপি হেডকোয়ার্টার শুভঙ্কর সিনহা সরকার জানান, এবার কলকাতা রেড রোডে ২৬ শে জানুয়ারির কুচকাবাজের অনুষ্ঠানে নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকবেন প্রায় আড়াই হাজার পুলিশ কর্মী।

ছোট বড় মিলিয়ে প্রায় ৯০ জন পুলিশ আধিকারিক পুরো বিষয়টি দেখভালের দায়িত্বে থাকবেন। এছাড়াও আলিপুর চিড়িয়াখানা থেকে শপিং মল এবং শহর কলকাতার দর্শনীয় দ্রষ্টব্য স্থানগুলিতে বাড়তি নিরাপত্তা এর ব্যবস্থা রাখা হচ্ছে। বলেও এদিন জানান তিনি। ২৬ শে জানুয়ারি উপলক্ষে শহর কলকাতাকে সমস্ত রকম নিরাপত্তার বলয়ে মুড়ে ফেলা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন। প্রশাসনিক সূত্রে খবর, এবার কুচকাওয়াজের অন্যতম আকর্ষণ যুদ্ধাস্ত্র। অর্থাৎ, যুদ্ধক্ষেত্রে ব্যবহৃত ভারতীয় স্থল সেনার অত্যাধুনিক সমরাস্ত্র। পূর্বাঞ্চলীয় সেনার বিভিন্ন রেজিমেন্টের কুচকাওয়াজ থাকছে।সঙ্গে কলকাতা পুলিশের মহিলা রেপিড ফোর্স এবং উইনার্স। বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব দুর্গাপুজো ইউনেস্কোর স্বীকৃতি পেয়েছে। তাই দিল্লির পাশাপাশি কলকাতার কুচকাওয়াজেও থাকছে ওই থিমের ট্যাবলো। ওই দিন কাঁটায় কাঁটায় সকাল পৌনে ১০টায় আসবেন রাজ্যপাল সি ভি আনন্দ বোস। তার কিছুক্ষণের মধ্যেই পুলিশ মেমোরিয়াল মূর্তির সামনে থেকে পায়ে হেঁটে রেড রোডে প্রবেশ করবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তারপরই শুরু হবে দেড় ঘন্টার কুচকাওয়াজ।