এই মুহূর্তে জেলা

ইউক্রেন থেকে বাড়ি ফিরে স্বস্তি, তিন মাস দূরত্বে ডাক্তারির ফাইনাল পরীক্ষা দিতে না পারার আক্ষেপ।


হাওড়া, ৫ মার্চ:- রোহন আজাদ লস্কর। হাওড়ার ডোমজুড়ের লতিফপুরের বাসিন্দা। যুদ্ধবিধ্বস্ত ইউক্রেন থেকে বাড়ি ফিরলেন। খুশি পরিবার। কিন্তু ডাক্তার হবার স্বপ্ন আপাতত অধুরা রয়ে গেলো তার। ছয় বছর আগে ইউক্রেনে ডাক্তারি পড়তে যান রোহন। আর মাত্র তিন মাস বাকি ছিলো ফাইনাল পরীক্ষার। তার আগেই শুরু হয়ে গেলো রাশিয়া ইউক্রেন যুদ্ধ। ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভে থাকতো সে।

যুদ্ধের সময় বাংকারে কাটাতে হয়েছে সহপাঠীদের সাথে। আতঙ্কে কেটেছে প্রতিটা মুহূর্ত। বোমা ও গুলির আওয়াজে ঘুম ছুটেছে। বাড়ি ফিরবেন ভাবতে পারেননি। রোহন জানান, প্রচন্ড ঠান্ডার মধ্যে হাঁটতে হয়েছে অনেক রাস্তা। বর্ডারে আসার ট্রেন ধরার জন্য ঘন্টার পর ঘন্টা দাঁড়িয়ে থাকতে হয়েছে। এরপর অবশেষে বিশেষ বিমানে ফিরতে পারলেও ডাক্তারি পরীক্ষা হলোনা। এই আক্ষেপ কিভাবে মিটবে তা বুঝে উঠতে পারছেন না রোহন।