এই মুহূর্তে জেলা

শ্রাবণী মেলার আগে শেওড়াফুলিতে ঘাট পরিদর্শনে মহকুমা শাসক, বিধায়ক ও পুরপ্রধানের।

হুগলি, ১০ জুলাই:- শ্রাবণী মেলার আগে শেওড়াফুলিতে ঘাট পরিদর্শনে মহকুমা শাসক,বিধায়ক ও পুরপ্রধানের। শ্রাবণ মাসে বাবা তারকনাথের মাথায় জল ঢালতে লক্ষ লক্ষ মানুষ বৈদ্যবাটির বিভিন্ন ঘাট থেকে জল তুলে তারকেশ্বরের দিকে রওনা হয়। আগামী ১৭ তারিখ থেকে শুরু। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে প্রতি সপ্তায় লক্ষ লক্ষ মানুষ বৈদ্যবাটি থেকে পায়ে হেঁটে তারকেশ্বরের দিকে রওনা দেবে। তার জন্যই প্রশাসনিক প্রস্তুতি তুঙ্গে। মেলার আগে শেওড়াফুলি এবং বৈদ্যবাটির একাধিক ঘাট ঘুরে দেখলেন

শ্রীরামপুর মহকুমা শাসক সম্ভূদ্বীপ সরকার, শ্রীরামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক, শেওরাফুলি জিআরপি এর ভারপ্রাপ্ত অধিকপূর্ত দপ্তরের আধিকারিক, এবং দমকল বিভাগের ভারপ্রাপ্ত আধিকারিকরা চাপদানীর বিধায়ক অরিন্দম গুইন। ঘাটের দু’ধারে শ্রাবণী মেলাকে কেন্দ্র করে বিশাল মেলা বসে আর তার জন্যই প্রশাসনে প্রস্তুতি তুঙ্গে। যাতে কোন অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে তার জন্য আগে থেকে খাটে মতন রাখা হবে পুলিশ বাহিনী, বিভিন্ন ঘাটে আলো এবং ব্যারিকেডের বন্দোবস্ত করা হবে। আজ টোটোয় চেপে সেসবই খতিয়ে দেখলেন বিভিন্ন দপ্তরের আধিকারিকরা।