এই মুহূর্তে জেলা

গৃহকর্ত্রী কে শৌচালয়ে আটকে চুরি!সিসিটিভি দেখে চোর খুঁজছে পুলিশ।


হুগলি, ১২ মার্চ:- চুঁচুড়া থানার কোদালিয়া দু’নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের বৈশাখী স্মরণী এলাকায় এই চুরির ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়ায়। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে দম্পতি সৃজিত ও শ্রাবণী গোস্বামী ওই বাড়িতে থাকেন। সৃজিত বাবু গ্যাস অফিসে চাকরি করেন। সকালে কাজে বেরিয়ে গিয়েছিলেন তিনি। বাড়ির পরিচারিকা কাজ করে বারোটা নাগাদ বেরিয়ে যান। গৃহকর্ত্রী জানান, তিনি দুপুরে বাড়ির দরজায় ছিটকানি লাগিয়ে শৌচালয়ে গিয়েছিলেন। কিছুক্ষণ পর সেখান থেকে বেরোতে গিয়ে দেখেন দরজা বাইরে থেকে আটকানো। ডাকাডাকি করলেও কারো সারা পাননা। জোরে জোরে দরজায় ধাক্কা মারেন। ধাক্কায় দরজার ছিটকানি খুলে যায়।

বাইরে বেরিয়ে দেখেন ঘরের দরজা অর্ধেক খোলা, ঘরের ভিতর গিয়ে দেখেন আলমারির লকার খোলা। সোনাদানা ও নগদ টাকা চুরি হয়ে গেছে। গোস্বামী দম্পতি জানান, আলমারির ভিতর নগদ ৭০ হাজার টাকা ছিল। সোনার গহনা ছিল প্রায় ২০ গ্রাম। এলাকার বাসিন্দারা জানান ভর দুপুরে এইভাবে চুরি হওয়ায় তারা আতঙ্কিত। এলাকায় মহিলারা পুরনো কাপড় কেনার জন্য আসেন অনেক সময়,অনেক হকারও আসেন। কিন্তু বাড়ির ভিতর ঢুকে এভাবে দরজা বাইরে থেকে আটকে দিয়ে চুরির ঘটনা দুঃসাহসিক। ব্যান্ডেল পুলিশ ফাঁড়িতে পুলিশ গিয়ে তদন্ত শুরু করে। কোদালিয়া দুই গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় সিসিটিভি আছে অনেক রাস্তায় তার ফুটেজ দেখে চোরের খোঁজ শুরু করেছে পুলিশ।