এই মুহূর্তে জেলা

শ্রীরামপুর ইএসআই হাসপাতালের জমিতে মেডিকেল কলেজ করার প্রস্তাব,শ্রমমন্ত্রীর।


হুগলি, ২৮ ফেব্রুয়ারি:- শ্রীরামপুর ই এস আই হাসপাতালে আধুনিক মানের ওটি, আইসিইউ, এইচ ডি ইউ পরিষেবা চালু হল আজ থেকে। উন্নত মানের রান্না ঘর, কনফারেন্স রুমেরও উদ্বোধন হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের শ্রম দপ্তরের মন্ত্রী মলয় ঘটক, শ্রীরামপুরের বিধায়ক সুদীপ্ত রায়, চাঁপদানীর বিধায়ক অরিন্দম গুঁইন, শ্রীরামপুর পুরসভার চেয়ারম্যান গিরিধারী সাহা সহ কাউন্সিলররা। বিধায়ক সুদীপ রায় জানান, ই এস আই হাসপাতালে আরও উন্নত পরিষেবা পাওয়া যাবে। তার জন্য আধুনিক সব ব্যবস্থা করা হয়েছে। শ্রীরামপুর ইএসআই হাসপাতালে মেডিকেল কলেজ করার মত জায়গা রয়েছে। মন্ত্রী দেখেছেন। শ্রীরামপুরে মেডিকেল কলেজ করার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। মলয় ঘটক বলেন, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে সারা রাজ্যে যতগুলো এসআই হাসপাতাল আছে তার উন্নয়ন হয়েছে। আইসিইউ এইচডিইউ থেকে আধুনিক ওটি হয়েছে।

বেশ কিছু হাসপাতালে ডায়ালিসিস ইউনিট হয়েছে, অন্যান্য জায়গায় ক্যাথল্যাব করার প্রস্তাবও দিয়েছি। বিগত দুই বছর কেন্দ্র সরকার থেকে কোনো পুরষ্কার ঘোষণা হয়নি। তার আগে সাত বছর গোটা দেশে সবচেয়ে ভালো ইএসআই পরিষেবা দেওয়ার জন্য পশ্চিমবঙ্গ পুরস্কৃত হয়েছে। কখনো ২৫ কোটি কখনো ৪০ কোটি আবার ৫০ কোটি টাকা করে আমরা পেয়েছি। মেডিকেল কলেজ করার জন্য ডাক্তার সুদীপ্ত রায় একটা প্রস্তাব দিয়েছেন ইএসআইয়ের একটা রিজিওনাল বোর্ড আছে সেই রিজনাল বোর্ডে এটা আবেদন করতে হয়। রিজিওনাল বোর্ডে আমি এই প্রস্তান পেশ করব। উল্লেখ্য শ্রীরামপুরে জিটি রোডের পাশে ই এস আই হাসপাতালের অব্যাহত অনেকটা জমি পরে রয়েছে।অনেক কোয়ার্টার পরিত্যক্ত হয়ে আছে।সেই জায়গায় পরিকাঠামো উন্নত করে মেডিকেল কলেজের দাবী এলাকার মানুষের বহু দিনের।