এই মুহূর্তে কলকাতা

রাজ্য সরকার ও বেঙ্গল কেমিক্যাল এর যৌথ উদ্যোগে বসানো হচ্ছে হেলথ এটিএম।


কলকাতা,৩০ এপ্রিল:- রাজ্য সরকারি কর্মীদের কাজের যায়গাতেই চটজলদি স্বাস্থ্য় পরীক্ষার ব্যবস্থা করতে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা পরিচালিত হেলথ এটিএম বসানো হচ্ছে। রাজ্য সরকার ও বেঙ্গল কেমিক্যালের যৌথ উদ্যোগে নবান্ন, স্বাস্থ্য ভবন, বিকাশ ভবন, কলকাতা পুরসভার সদর দফতর সহ পাঁচটি দফতরে এই পরিষেবা চালু করা হচ্ছে বলে প্রশাসনিক সূত্রে জানা গেছে। হিন্দুস্তান অ্যারোনটিক্স বিনামূল্যে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স বা কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা সম্পন্ন এই সব যন্ত্র রাজ্যকে দিয়েছে। এতে পাঁচ মিনিটের মধ্যে সুগার, ব্লাড প্রেসার, ইসিজি, লিপিড প্রোফাইল সহ ৫৫ ধরণের শারীরিক পরীক্ষা সম্ভব। এছাড়া করোনা, ডেঙ্গুর রোগ নির্ণয় পরীক্ষাও করা যাবে। রাজ্য সরকারি কর্মীরা নিখরচায় এই স্বাস্থ্য পরীক্ষার সুযোগ পাবেন বলে জানা গেছে।এইসব পরীক্ষা যে কোনও বেসরকারি ল্যাবরেটরি থেকে করাতে হলে কয়েক হাজার টাকা খরচ হতে পারে।

রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা হিন্দুস্তান অ্যান্টিবায়োটিক লিমিটেডের তৈরি এই হেলথ এটিএমগুলি ইতিমধ্যেই চলে এসেছে বেঙ্গল কেমিক্যালের ডালহৌসির সদর দপ্তরে। সূত্রের খবর, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা বা আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স যুক্ত হেলথ এটিএমের কিছু সুবিধা রয়েছে। এক, এখানে প্রবেশ করে নিজের তথ্যাবলী জানালে সেই ইনফরমেশন রেকর্ড হয়ে থাকবে ক্লাউডে। ফলে যতবারই রোগী পরীক্ষা করাবেন, ততবারই আগের রিপোর্টের সঙ্গে নতুন রিপোর্টের তুলনা করার সুযোগ থাকবে। দুই, সমস্ত রিপোর্ট ই-মেল এবং হোয়াটসঅ্যাপে পাঠানোর ব্যবস্থা রয়েছে। তিন, রিপোর্টের পাশাপাশি কী ধরনের ডায়েট প্ল্যান করলে সেই ব্যক্তি নীরোগ ও ফিট থাকবেন, তা জানিয়ে দেবে মেশিন। চার, কিউ আর কোড লাগানো ব্যক্তিগত হেলথ কার্ড বেরিয়ে আসবে মেশিন থেকে। পাঁচ, প্রয়োজনে ডাক্তারের সঙ্গে ভিডিও বা অডিও কলে কথা বলার সুযোগ রয়েছে।