এই মুহূর্তে জেলা

প্রতিষ্ঠা দিবসেই তৃণমূলের কার্যালয়ে ভাঙচুর, চাঞ্চল্য ব্যান্ডেলে।


সুদীপ দাস, ১ জানুয়ারি:- দলের প্রতিষ্ঠা দিবসের দিনেই দলীয় কার্যালয়ে ভাঙচুরের অভিযোগ উঠল। ঘটনায় অভিযোগের তীর বিজেপির দিকে। বছরের প্রথম দিন ঘটনাটি ঘটেছে ব্যান্ডেল বালিকাটা এলাকায়। স্থানীয় সূত্রে খবর বছরের শেষ দিন রাত করেই ওই কার্যালয় বন্ধ হয়। প্রতিদিনকার মত কার্যালয়ে ঘুমোচ্ছিলেন স্থানীয় তৃণমূল কর্মী রাজু সাউ। ভোর রাত সাড়ে তিনটে নাগাদ এলাকারই তিন দুষ্কৃতি দরজা ভেঘে ভিতরে ঢোকে। এরপর রাজুকে মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। পাশাপাশি কার্যালয়ের ভিতরে থাকা আসবাবপত্রে ভাঙচুর চালায়। তৃণমূলের পতাকা ও দলীয় নেত্রীর ছবি সম্বলিত ফ্লেক্স তছনছ করে। সকালে খবর জানাজানি হতেই এলাকায় রীতিমত চাঞ্চল্য ছড়ায়।

উত্তেজিত জনতারা ভিড় জমান পার্টি অফিসের সামনে। স্থানীয় তৃণমূল নেতা সৈকত দাস বলেন বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতিরাই এই ঘটনা ঘটিয়েছে। অন্যদিকে খবর পেয়ে এদিন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন চুঁচুড়ার বিধায়ক অসিত মজুমদার। পার্টি অফিস পরিদর্শন করে বিধায়ক বলেন পঞ্চায়েত ভোটের আগে বিরোধীরাই এই ঘটনা ঘটিয়েছে। আমি চাইলে ১৫মিনিটের মধ্যে চুঁচুড়া শহরে বিরোধীদের সমস্ত কার্যালয় বন্ধ করে দিতে পারি। কিন্তু আমরা সেটায় বিশ্বাসী নই। পুলিশ পুলিশের কাজ করবে। যদিও এই ঘটনার সাথে বিজেপি যুক্ত নয় বলে দাবি করেন বিজেপি নেতা সুরেশ সাউ। তিনি বলেন এটা তৃণমূলের গোষ্ঠীকোন্দলের ফল। বালিকাটার এই ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ।