এই মুহূর্তে জেলা

ভাজপার অন্দরের বৈঠকে মুখ খুলে সমালোচিত লকেট চুপ হুগলীতে !


সুদীপ দাস, ৬ মার্চ:- দলের অন্দরের কথা দলেকেই বলবো। রবিবার হুগলীতে এসে বারংবার সাংবাদিকদদের একথাই বললেন হুগলীর বিজেপি সাংসদ লকেট চ্যাটার্জী। রবিবারও ইউক্রেন ফেরত পড়ুয়াদের দেখতে হুগলীতে আসেন সাংসদ তথা দলের রাজ্য সম্পাদিকা লকেট চ্যাটার্জী। এদিন উত্তরপাড়া, সিঙ্গুর হয়ে হুগলীর ব্যান্ডেল কৈলাসনগরে আসেন লকেট চ্যাটার্জী। এই তিন জায়গায় তিন ইউক্রেন ফেরত পড়ুয়াদের সাথে কথা বলে আশ্বস্ত সাংসদ বলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্রী মোদীর প্রচেষ্টায় যুদ্ধবিদ্ধস্ত ইউক্রেন থেকে ভারতীয়দের ফিরিয়ে আনা হচ্ছে। পাশাপাশি পড়ুয়াদের ভবিষ্যতের কথাও ভাবা হচ্ছে বলে সাংসদ বলেন।

অন্যদিকে শনিবার কোলকাতায় বিজেপির রাজ্য নেতৃত্বদের বৈঠকে সদ্য সমাপ্ত পৌর নির্বাচনে দলের ভরাডুবি নিয়ে মুখ খুলেছেন লকেট চ্যাটার্জী। দলেরই একাংশের সৌজন্যে রুদ্ধদ্বার সেই বৈঠকের খবর প্রকাশ্যে এসেছে। যেখানে সাংসদ দলের নেতাদের বিরুদ্ধেই সরব হয়েছিলেন বলে খবর। যা নিয়ে রবিবার দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি দিলীপ ঘোষ একাধিক সংবাদমাধ্যমের কাছে পৌর ভোটে লকেটের ভূমিকা নিয়েই প্রশ্ন তুলেছেন। এবিষয়ে এদিন লকেট চ্যাটার্জী বলেন দিলীপবাবু দলের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি ও রাজ্যের প্রাক্তন সভাপতি উনি দলের অন্দরের কথা প্রকাশ্যে বলবে বলে আমি মনে করি না।

পৌরভোট নিয়ে দলের অন্দরে সরব হলেও এদিন নিজ নির্বাচনী এলাকার আওতাভুক্ত চুঁচুড়া, চন্দননগর ও ভদ্রেশ্বরে বিজেপির ভরাডুবির পিছনে এদিন সাংবাদিকদের সামনে তিনি তৃণমূলের ছাপ্পাভোট দেওয়াকেই কারন হিসাবে দেখিয়েছেন। পাশাপাশি পৌর নির্বাচনে বহু জায়গায় সিপিএমের ২য় স্থানে উঠে আসার জন্যও তৃণমূলের হাত রয়েছে বলে দাবী করেন লকেট চ্যাটার্জী। অন্যদিকে সাহাগঞ্জের ডানলপ কারখানার ভরাডুবি নিয়েও রাজ্য সরকারকেই দায়ী করেন সাংসদ।