এই মুহূর্তে জেলা

প্রতারণার অভিযোগে গ্রেপ্তার খানাকুলের এক ভিলেজ পুলিশ।


আরামবাগ, ২৭ আগস্ট:- ধর্ষণের ও প্রতারণার অভিযোগে গ্রেপ্তার খানাকুলের এক ভিলেজ পুলিশ। ধৃত ভিলেজ পুলিশের নাম মন্টু দোলুই। বাড়ি খানাকুল নন্দনপুর এলাকায়। মন্টু দোলুইয়ের দ্বিতীয় স্ত্রীর অভিযোগ বিয়ে করে দীর্ঘ তিন বছর ধরে আরামবাগে একটি ভাড়াবাড়িতে থাকতেন তারা। এইভাবে ৩ বছর কেটে যায়। তারপর মন্টুর দ্বিতীয় স্ত্রী, তার বিবাহের কথা ও তার বাচ্চার কথা জানতে পারায় প্রথমে খানাকুল থানায় যান। তারপর আরামবাগ মহিলা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের ভিত্তিতে গ্রেফতার করে পুলিশ। এদিন তাকে কোটে তোলা হলে মহামান্য বিচারক তাকে ১৪ দিনের জেল হেপাজতের নির্দেশ দেন। মন্টুর দ্বিতীয় স্ত্রীর আরও অভিযোগ তাকে নাকি দীর্ঘ এতদিন ধরে মিথ্যে বলেছে। সমস্ত কথা গোপন করে রেখেছিল। অবশেষে আরামবাগ মহিলা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। তারপর বৃহস্পতিবার তাকে বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে আরামবাগ পুলিশ। এই বিষয়ে মন্টু দোলুইয়ের প্রথম স্ত্রী জানান, তার স্বামীকে মিথ্যা কেসে ফাঁসানো হচ্ছে। তার সঙ্গে ভালো সম্পর্ক। সবমিলিয়ে এই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য এলাকা জুড়ে।