এই মুহূর্তে জেলা

আদালতে সাক্ষ্য দিলেন ১০৫ বছরের বৃদ্ধ।


হুগলি, ৬ ফেব্রুয়ারি:- সম্পত্তি বিভাজনের(পার্টিশান শুট) মামলায় আদালতে সাক্ষ্য দিলেন শতায়ূ বৃদ্ধ। মঙ্গলবার চুঁচুড়া জেলা আদালতে দ্বিতীয় সিভিল জজ সিনিয়র ডিভিশনের ঘরে সাক্ষ্য দেন কালি কুমার বসু। পেশায় রেলের অবসরপ্রাপ্ত কর্মি তিনি। তার জন্ম ১৯১৯ সালের ১ জানুয়ারি। বাড়ি পোলবা থানার অন্তর্গত মেরিয়া গ্রামে। এই বয়সেও বেশ শক্ত সমর্থ বৃদ্ধ। আইনজীবী বিদ্যুৎ রায় চৌধুরী বলেন, গত ২০১৭ সাল থেকে শরিকদের সঙ্গে কালি বাবুর একটি সম্পত্তি বিভাজনের মামলা চলছিল।

কালি বাবুর সম্মতি ছাড়া শরিকরা সম্পত্তির কিছুটা অংশ বিক্রয় করে দিয়ে ছিলেন। আইন অনুযায়ী শরিকি সম্পত্তি বিক্রয় করতে গেলে বাকি শরিকদের সম্মতি নিয়ে হয়। নাহলে আদালতের নির্দেশে সেই সম্পত্তি পুনরায় ফেরত দেওয়ার ব্যবস্থা করা যায়। সেই মামলা এতদিন ধরে চলছিল। একজনের সাক্ষ্য গ্রহণ বাকি ছিলো। বয়সের কারণে সেটা হয়ে উঠছিল না। এদিন নাতি সাহায্যে কালি বাবু আদালতে পৌঁছন। তাঁর সাক্ষ্য গ্রহণ সম্পন্ন হয়। আগামী ১৬ তারিখ মামলার চূড়ান্ত রায় হবে।