এই মুহূর্তে কলকাতা

বিধানসভায় বিরোধী দলনেতাকে সাসপেন্ডের প্রতিবাদে অধ্যক্ষের দেওয়া পেয়ারা প্রত্যাখ্যান বিরোধীদের।


কলকাতা, ৭ ডিসেম্বর:- বিধানসভার স্পিকারের বিরুদ্ধে অন্যায় ভাবে বিরোধী দলনেতাকে সাসপেন্ড করার অভিযোগ তুলে বিরোধী তার দেওয়া উপহার প্রত্যাখ্যান করল বিজেপি। বিধানসভার চলতি অধিবেশনের শেষ দিনে অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর নির্বাচনী ক্ষেত্র বারুইপুরের বিখ্যাত পেয়ারা বিধানসভার সমস্ত দলের সদস্যদের মধ্যে বন্টন করেন। কিন্তু প্রধান বিরোধী দল বিজেপির সদস্যরা তা নেননি। এদিন যখন বিধানসভার অধিবেশন কক্ষে তৃণমূল ও বিজেপি দু’পক্ষের মধ্যে তুমুল উত্তেজনা চলছিল, তখনই স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় সব বিধায়কের উদ্দেশে বলেন,‘আপনারা সবাই পেয়ারা নিয়ে যাবেন।’

যদিও এরপর হই হট্টগোলের মধ্যেই বিজেপি বিধায়করা ওয়াক আউট করে যান। উল্লেখ্য, প্রতিবছর স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়, তাঁর বিধানসভা এলাকা বারুইপুরে হওয়া পেয়ারা বিধায়কদের জন্য নিয়ে আসেন। আজও সেরকমই নিয়ে এসেছিলেন। বিধানসভার অধিবেশন থেকে বিজেপি ওয়াক আউট করে যাওয়ার পর, তিনি বিধানসভায় নিজের ঘরে ডেকেছিলেন বিজেপি পরিষদীয় দলের মুখ্য সচেতক মনোজ টিগ্গাকে। বিজেপি বিধায়কদের জন্য পেয়ারা নিয়ে যেতে বলেন। তার প্রেক্ষিতে মনোজ টিগ্গা কারণ দেখিয়ে পেয়ারা প্রত্যাখ্যান করার কথা জানান। মনোজ বাবু তাঁকে জানান, বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীকে সাসপেন্ড এবং জাতীয় সঙ্গীত নিয়ে মিথ্যে মামলা করার প্রতিবাদে তাঁরা তা গ্রহণ করবেন না।

অধ্যক্ষ অবশ্য অধিবেশন শেষে প্রথা মাফিক ধন্যবাদ জ্ঞাপক প্রস্তাবের শেষে জবাবী ভাষণে শাসক দলের পাশাপাশি বিরোধী দলের বিধায়কদেরও ধন্যবাদ জানিয়েছেন। বিধানসভার বাইরে রাজনৈতিক কর্মসূচি গ্রহণের থেকে বিধানসভার ভিতর থেকে কাজকর্মে আরও বেশি করে অংশগ্রহণের জন্য তিনি বিরোধীদের পরামর্শ দেন। অধ্যক্ষ বলেন বিশ্বাস মনে করেন বিরোধীদের জন্যই বিধানসভা।সেকারণে প্রশ্নোত্তর সহ বিধানসভার যাবতীয় কর্মসূচিতে বিরোধীদের বেশি সুযোগ করে দেওয়ার তিনি পক্ষপাতী। পরিসংখ্যান দিয়ে অধ্যক্ষ জানান চলতি অধিবেশনে মোট ৪০০ টি অতিরিক্ত প্রশ্ন করার সুযোগ দেওয়া হয়েছিল তার মধ্যে ২৩৪ টি বিরোধী বিধায়করা করেছেন।