এই মুহূর্তে জেলা

কুসংস্কার দূর করতে বিজ্ঞান মঞ্চের বিশেষ সচেতনতা মহানাদে।


হুগলি, ৩ মে:- মঙ্গলবার পোলবা দাদপুর ব্লকের মহানাদ পঞ্চায়েতের সুদর্শন এ সাপের কামড়ে এক সাড়ে চার বছরের শিশুর মৃত্যু হয়। সুরজিৎ রুইদাস নামে ওই শিশুকে ওঝার কাছে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল বলে অভিযোগ ওঠে। পরে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলেও বাঁচানো যায়নি। বুধবার কুসংস্কার দূর করতে পোলবা দাদপুর ব্লকের মহানাদ গ্রাম পঞ্চায়েতের সুদর্শন গ্রামে মৃত সুরজিৎ রুইদাস এর পাড়ায় পৌঁছালো ব্লক স্বাস্থ্য দপ্তরের আধিকারিকরা। হল বিজ্ঞান মঞ্চের বিশেষ সচেতনতা।জানাযায়, গতকাল সুদর্শন গ্রামে বছর চারেকের শিশু সুরজিৎ রুইদাস কে তার বাড়িতে সাপে কামড়ায়। বাড়িতে ছিল তার বছর ৬৫ ঠাকুমা। তড়িঘড়ি তাকে নিয়ে যায় স্থানীয় এক মনসা ঠাকুর বাড়িতে সেখান থেকে অপর আরেক ঠাকুরবাড়ি যায় বলে জানা যায়।

বেশ কিছুটা সময় অতিক্রম করার পর শিশুটির শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে থাকে। পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা তাকে নিয়ে যায় পোলবা গ্রামীণ হাসপাতালে। হসপিটাল সূত্রে খবর হাসপাতাল যাওয়ার পথেই শিশুর মৃত্যু হয়। বাড়ির লোক তার না মানতে পারায় তাকে নিয়ে যায় চুঁচুড়া সদর হাসপাতালে। সেখানে শিশুকে মৃত বলে ঘোষণা করে চিকিৎসক ময়নাতদন্তের পর দেহ তুলে দেয়া হয় পরিবারের লোককে। বিজ্ঞানের যুগে এখনো অন্ধকারে গ্রাম বাংলার বেশ কিছু মানুষ। কুসংস্কার দূর করতে আজ বুধবার বেলা বারোটা নাগাদ মৃত শিশুর বাড়িতে পৌঁছায় পোলবা ব্লক স্বাস্থ্য দপ্তরের আধিকারিকরা। সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিক দপ্তরের প্রতিনিধিরা।গ্রামের মানুষদের নিয়ে হয় বিজ্ঞান মঞ্চের বিশেষ সচেতনতা। উপস্থিত ছিলেন সর্প বিশেষজ্ঞ চন্দন ক্লেম্নট সিং।