জেলা এই মুহূর্তে

সেন্ট্রাল এক্সাইজের অবসরপ্রাপ্ত অফিসারের ফ্ল্যাট থেকে কয়েক লক্ষ টাকার সোনার গয়না ও নগদ টাকা চুরির ঘটনা ঘটেছে।


হাওড়া, ১৫ মার্চ:- কেন্দ্রীয় সরকারের সেন্ট্রাল এক্সাইজ বিভাগের এক অবসরপ্রাপ্ত অফিসারের হাওড়ার চ্যাটার্জিহাটের ফাঁকা ফ্ল্যাট থেকে প্রায় ৬ লক্ষ টাকার গয়না ও নগদ ৪০ হাজার টাকা চুরির ঘটনা ঘটেছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে চ্যাটার্জিহাট থানার পুলিশ। জানা গেছে, চ্যাটার্জিহাট থানার মহেশ পাল রোডের লোকনাথ অ্যাপার্টমেন্টের ফ্ল্যাটে থাকেন কেন্দ্রীয় সরকারের এক্সাইজ ডিপার্টমেন্টের প্রাক্তন সুপারিনটেনডেন্ট আনন্দ কুমার মিশ্র। তাঁর শাশুড়ী অসুস্থতার কারণে জামশেদপুরের একটি বেসরকারি হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি রয়েছেন। দিন দশেক আগে আনন্দবাবুর স্ত্রী মাকে দেখাশোনা করতে জামশেদপুরে চলে গিয়েছিলেন।

গত ১২ তারিখ দুপুর দেড়টা নাগাদ ফ্ল্যাট লক করে আনন্দবাবুও শাশুড়িকে দেখতে চলে যান। সেই থেকে ফ্ল্যাটটি তালাবন্ধ অবস্থাতেই ছিল। এরপর সোমবার ফ্ল্যাটের এক মহিলা বাসিন্দা প্রাক্তন ওই অফিসারের স্ত্রীকে ফোন করে জানান তাদের ফ্ল্যাটের গেট খোলা আছে। এরপর ওই মহিলা ফ্ল্যাটের অন্যান্য বাসিন্দাদের নিয়ে ভিতরে ঢুকে দেখেন ঘরের সব আলমারির দরজা খোলা। যাবতীয় সোনার গয়না এবং টাকা পয়সা চুরি গেছে। গয়নার বাক্স এদিকে ওদিকে ছড়ানো। চুরির খবর পেয়ে মঙ্গলবারই হাওড়ায় বাড়িতে ফেরেন প্রাক্তন ওই অফিসার। তাঁর দাবি, আলমারি ভেঙে প্রায় ১২৫ গ্রাম সোনা এবং নগদ ৪০ হাজার টাকা চুরি গেছে। যদিও ল্যাপটপ বা অন্যান্য দামি জিনিস চোরেরা নিয়ে যায়নি। এই ঘটনায় তিনি থানায় লিখিতভাবে অভিযোগ দায়ের করেছেন। চ্যাটার্জিহাট থানার পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। এই ঘটনায় পরিচিত কেউ আছে কিনা তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।