এই মুহূর্তে জেলা

রাতের অন্ধকারে হাতির হানায় এক যুবকের মৃত্যুর ঘটনাকে কেন্দ্র করে স্থানীয় বাসিন্দাদের মধ্যে ক্ষোভ।


বাঁকুড়া, ৭ অক্টোবর:- এবার রাতের অন্ধকারে এক যুবকের মৃত্যুর ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য তৈরি হল। ঘটনাটি ঘটেছে সোনামুখী রেঞ্জের কোচডিহি পঞ্চায়েতের নয়নাকুণ্ডা মাঠে । মৃত যুবকের নাম মিলন কারক। বয়স 25 বছর বাড়ির কোচডিহি গ্রামে। স্থানীয় সুত্র জানতে পারা যায়, সোনামুখী জঙ্গলে হাতির দল প্রবেশ করলে ফসলের ক্ষতি এড়াতে স্থানীয় বাসিন্দারা হাতি তাড়াতে যান। সেই সময় হাতির সামনে পড়ে যান মিলন কারক এবং হাতি তাকে পায়ে পিশে মেরে দেয়। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় স্থানীয় বাসিন্দাদের মধ্যে ক্ষোভ তৈরি হয়। স্থানীয় বাসিন্দারা সোনামুখী বনদপ্তরে খবর দিলে বনদপ্তর সোনামুখী থানায় খবর দেন। খবর পেয়ে তড়িঘড়ি ঘটনাস্থলে পৌঁছায় সোনামুখী থানার পুলিশ।

স্থানীয় বাসিন্দাদের সহযোগিতায় পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বিষ্ণুপুর জেলা হাসপাতালে পাঠান। বাঁকুড়া উত্তর বন বিভাগ সূত্রে জানতে পারা যায় সোনামুখী রেঞ্জের ভুলা মৌজায় 36 থেকে 38 টি হাতে রয়েছে। তবে ঘটনার জন্য স্থানীয় বাসিন্দারা বনদপ্তরের গাফিলতিকে দায়ী করছেন । লক্ষণ ঘড়ুই নামের এক স্থানীয় বাসিন্দা বলেন, ঘটনাস্থলে বনদপ্তর আধিকারিকরা পৌঁছায়নি যার জন্য এই দুর্ঘটনা ঘটলোসোনামুখী বনাধিকারিক দয়াল চক্রবর্তী এই ঘটনার জন্য গভীর শোক প্রকাশ করেছেন তিনি বলেন, সরকারি নিয়ম অনুযায়ী তাকে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে এবং মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণা মত একটি চাকরির আশ্বাস দেন তিনি ।